শিশুকে যেসব খাবার একসঙ্গে খাওয়াবেন না

অনলাইন ডেস্ক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:৪৭ PM, ১৮ মার্চ ২০২১

আমরা প্রতিদিন নানা ধরনের খাবার খাই। শুধু তাই নয়, একসঙ্গে অনেকরকম খাবার মিশিয়েও খাই। যেমন চায়ের সঙ্গে বিস্কুট, মুড়ির সঙ্গে চানাচুর কিংবা পাকোড়ার সঙ্গে সস। অঞ্চলভেদে খাদ্যাভ্যাস বদলালেও তিনবেলা মূল খাবার ও তার ফাঁকে ফাঁকে হালকা নাস্তা খাওয়া মোটামুটি পরিচিত চিত্র। আমরা প্রতিদিন যা খাই, সেসব সম্পর্কে কতটুকু জানি? এমন কিছু খাবার রয়েছে যা একসঙ্গে খেলে উপকারের বদলে ক্ষতি বেশি হয়। বিশেষ করে শিশুর ক্ষেত্রে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই জেনে নিন কোন খাবারগুলো শিশুকে একসঙ্গে খেতে দেবেন না।

ফ্রেঞ্চফ্রাই ও বার্গার

যেকোনো ফাস্টফুডের দোকানে গেলেই দেখা যায় শিশুরা বেশ মজা করে বার্গার ও ফ্রেঞ্চফ্রাই খাচ্ছে। বিশেষ করে শহরের শিশুর ক্ষেত্রে এটি খুব পরিচিত একটি চিত্র। অনেকে আবার শিশুর আবদারে ঘরেও তৈরি করে দেন এ ধরনের খাবার। এই দুই খাবারই ডিপ ফাই করা। ফলে এগুলো খেলে তা রক্তে শর্করার মাত্রা অনেকটা কমিয়ে দিতে পারে। বড়রা এটি সামাল দিতে পারলেও শিশুর ক্ষেত্রে বাধে বিপত্তি। তাই শিশুকে এই দুই খাবার একসঙ্গে খাওয়াবেন না।

কলা ও দুধ

কলা উপকারী ফল। দুধও ভীষণ পুষ্টিকর। এই দুই খাবারের খাদ্যগুণ নিয়ে কারও সন্দেহ নেই। অনেকেই শিশুকে দুধের সঙ্গে কলা চটকে ভাত মেখে খেতে দেন। অনেকে আবার এই দুই উপাদান দিয়ে মিল্কশেক তৈরি করে দেন। কিন্তু শিশুকে দুধ ও কলা একসঙ্গে খেতে দিলে তার শরীর অনেকটা ভারী হয়ে যাবে এবং ঝিমুনি আসবে। নিয়মিতভাবে দুধ ও কলা একসঙ্গে খেলে দেখা দিতে পারে মানসিক সমস্যাও, এমনটাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

পিজ্জা ও কোমল পানীয়

শিশুর পছন্দের খাবারের তালিকায় রয়েছে পিজ্জাও। আর তার সঙ্গে কোমল পানীয় হলে তো কথাই নেই! যেসব শিশু কোনো খাবারই খেতে চায় না, তারাও কোমল পানীয় পেলে ভীষণ খুশি হয়। কিন্তু পিজ্জায় থাকে প্রচুর স্টার্চ, প্রোটিন ও কার্বোহাইড্রেট। তাই এই খাবার হজম করতে ক্যালোরি পোড়াতে হয় অনেকটা। পিজ্জার সঙ্গে কোমল পানীয় খেলে তা হজম প্রক্রিয়ায় বিঘ্ন ঘটাতে পারে। তাই এই দুই খাবার শিশুকে একসঙ্গে খেতে দিলে দেখা দিতে পারে বদ হজম।

পাউরুটি ও জেলি

সকালের নাস্তায় পাউরুটি ও জেলি খেয়ে থাকেন অনেকেই। কিন্তু সাদা পাউরুটির সঙ্গে জেলি খাওয়া একদমই উচিত নয়। এই দুই খাবার একসঙ্গে খেলে রক্তে শর্করার পরিমাণ হঠাৎই বেড়ে যেতে পারে। শিশুর শরীর সামঞ্জস্য রেখে ইনসুলিন তৈরি করতে না পারলে তার ডায়াবেটিস দেখা দিতে পারে। তাই শিশুকে এমন খাবার খেতে দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।

সিরিয়াল ও ফলের রস

বাড়ন্ত প্রায় সব শিশুকেই সকালের খাবারে সিরিয়াল দেওয়া হয়। এতে তারা সারাদিনের শক্তি পায়। পাশাপাশি শিশুকে সকালের খাবারে ফলের রসও খেতে দেন অনেকে। এই দুই খাবার কখনোই একসঙ্গে খাওয়ানো উচিত নয়। এর কারণ হলো, ফলের রসে থাকে সাইট্রাস যা এনজাইমের কার্যকারিতা কমিয়ে দেয়। এর ফলে সিরিয়ালের মধ্যে থাকা কার্বোহাইড্রেট ভেঙে শরীরে জমে যেতে পারে। যা পরবর্তীতে মারাত্মক ক্ষতির কারণ হতে পারে।

আপনার মতামত লিখুন :