বাংলাদেশ রেলওয়ে কি আদমজী জুট মিলের মত ভাগ্য বরণ করতে যাচ্ছে?

মোঃ গোলাম জাকির
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:৩১ PM, ২৫ জুন ২০২১

তবে কি আদমজী জুট মিলের ভাগ্য বরন করতে চলেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে…..? মনে পরে কি?দুমাস/চারমাস/ছমাস বেতন বন্ধ হতে হতে একসময় চিরতরে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল আদমজী জুট মিলে কর্মরত ভাগ্যবিরম্বিত অনেক অসহায় কর্মচারীর?। বেতন বন্ধ হওয়ার পিছনে মুল কারন হিসেবে দেখানো হয়েছিলো মিলের লোকসান।অথচ বন্ধ হওয়ার ১৫ বছর আগেও লাভের মুখ দেখেছিল পাটকলটি। তৎকালীন বিএনপি সরকার ২০০২ সালে গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে ২৫ হাজারের বেশী কর্মচারীকে পথে বসিয়েছিলো। কিন্তু পরবর্তীতে মিডিয়ার মাধ্যমে সবাই জেনেছে, কিছু অসাধু কর্মকর্তার কারসাজি, সরকারের ভুল সিদ্ধান্ত এবং লাগামহীন দুর্নীতিই ছিলো মিল বন্ধের মূল কারন। একদিকে কিছু কিছু কর্তা ব্যক্তি স্বার্থ সিদ্ধি করে বিদেশে অর্থ বিত্ত গড়ে তুলেছে আর অন্যদিকে হাজার হাজার কর্মী ছাটাই, ফলাফল পাটকল বন্ধ। সুগার মিল গুলোরও একই অবস্থা। বিএনপি শাসনামলে রেলওয়েকে প্রাইভেট কোম্পানি করার বেশ সুন্দর একটি পরিকল্পনা আঁকা হয়েছিল।সেসময় গোল্ডেন হ্যান্ডশেক এবং বাধ্যতামূলক চাকুরী থেকে অবসর গ্রহনের মাধ্যমে রেওয়েকে মেরুদন্ডহীন করা হয়েছিলো। কিন্তুু পরবর্তীতে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ক্ষমতায় এসে রেলবান্ধব প্রধানমন্ত্রী দেশমাতা জননেত্রী শেখ হাসিনা রেলকে আবার তার হারানো যৌবন ফিরিয় দেন। ভালোই চলছিলো বেশ। কিন্তুু কোন একটি পক্ষ বরাবরই সরকারের উন্নয়নকে বাঁধাগ্রস্ত করে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করেই চলছে। তারই ধারাবাহিকতায় একমাসের বেতন অন্য মাসে,, এক তারিখের বেতন ২০ তারিখ,১১ তারিখের বেতন ২৯ তারিখ! কিন্তুু এমনটা কেন? এই প্রশ্নের সদুত্তর কেই দিতে পারছেন না। গত বছর করোনার প্রথম লকডাউনে বলা হল বেতন ব্যাংকের মাধ্যমে দেওয়া হবে, ভালো কথা। সে বিরম্বনা যেতে না যেতেই ইএফটি, ইএফটি শেষ হতে না হতেই আইবাস ++। সিস্টেম পরিবর্তনে আমাদের কোনো অভিযোগ নাই।আমরা ডিজিটাল যুগের ডিজিটাল সিস্টেমকে স্বাগত জানাই।।কিন্তুু প্রশ্ন হলো আইবাস প্লাস প্লাস ট্রেইনিং যারা করলেন আপনারা তখন ত্রুটিগুলো ধরতে পারেন নাই কেনে, নাকি ইচ্ছাকৃত চেপে গেছেন? আর এই সিস্টেম কি শুধু রেলওয়েতেই বিদ্যমান নাকি অন্য কোথাও আছে? রেলওয়েতে সামান্য বিশ/বাইশ হাজার লোকের সিস্টেম করতে এত সমস্যা হওয়ার কথা নয়, মূল সমস্যা আসলে কোথায়? নাকি শ্রমিক অসন্তোষ বাড়িয়ে একটা বিশৃংঙ্খলা তৈরী করে আদমজী জুট মিলের অবস্থা করতে চান? ব্রিটিশ আইন এবং প্রধানমন্ত্রীর স্বাক্ষরিত মাইলেজ ভাতা বাতিল করতে চাওয়া ষড়যন্ত্রের নীলনকশা কিনা, ভাবতে হবে সকলকেই।,ছয় মাস বেতন ভাতা ব্যাংকের মাধ্যমে প্রদানের জন্য বলা হয়েছে। ভালো কথা কিন্তু এটি সুরাহা করতে ছয়মাস কেন লাগবে, নাকি কোন ভাবে চাচ্ছেন নতুন কোন ফন্দি আঁকতে?মনে রাখবেন বঙ্গকন্যা সবকিছুর খবর রাখেন, তই বলছি, সাধু সাবধান। জেনে রাখবেন এটি ২০০২ সাল নয় এটি ২০২১ সাল। এটা বিএনপি আমল নয় এটা দেশমাতা শেখ হাসিনার আমল।

আপনার মতামত লিখুন :