আবারও ঈদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত হলো শত শত রেলওয়ে কর্মচারী : মোঃ মনিরুজ্জামান মনির

নিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:৫৪ PM, ১৯ জুলাই ২০২১

বাংলাদেশ রেলওয়ে পোষ্য সোসাইটির সভাপতি মোঃ মনিরুজ্জামান মনির এক প্রেস বিজ্ঞাপ্তিতে বলেন,গত ঈদে হাজার হাজার রেলওয়ে কর্মচারী ইদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত হয়েছিল। এবার শত শত রেলওয়ে কর্মচারী ঈদের আনন্দ থেকে বঞ্চিত হলো।রেলওয়ের পাকশী ও লালমনিরহাট বিভাগ এর বানিজ্যিক ও পরিবহন সেকশন এর শত শত কর্মচারী ১৯ জুলাই বিকাল ৫ টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত সময় অতিবাহিত হওয়ার পরেও বেতন- বোনাস না পাওয়ায় হাতাশায় নিমজ্জিত। অনেকে বেতন পেলেও বোনাস পায়নি কেউ কেউ বোনাস পেলেও বেতন পায়নি, আবার অনেকে বেতন – বোনাস কিছুই পায়নি। এ বিষয়ে রাজশাহী জিএম জনাব মিহির কান্তি গুহ মহোদয় এর সাথে কথা বললে তিনি বলেন সকলেই বেতন – বোনাস পেয়ে যাবেন। একটি বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায় গত ১৪ জুলাই তারিখে তাদের বিল সোনালী ব্যাংকে জনা দেওয়া হয়েছে। কিন্তু এখনো তারা বেতন – বোনাস না পাওয়াটা দুঃখ জনক। সাধারণ রেলওয়ে কর্মচারীরা বেতনের টাকার উপর নির্ভরশীল। তাদের ছেলে – মেয়েদের পড়াশোনা, বয়স্ক বাবা- মা’দের চিকিৎসা খরচসহ সব কিছুই নির্ভর করে এই বেতনের উপর। সাধারণ রেলওয়ে কর্মচারীদের কোন সেভিংস থাকে না, যে সেই টাকা দিয়ে কোরবানি দিবে। যারা আশায় ছিল বেতন- বোনাস পেলে কোরবানি দিবে তাদের সেই আশা পুরন তো দুরের কথা ঈদ উদযাপনই করতে পারবেনা। আজ মাসের ১৯ তারিখ অথচ বেতন হওয়ার কথা ১০- ১২ তারিখে। যাদের নুন আনতে পানতা ফুরায় তারা বেতন- বোনাস ছাড়া ঈদ উদযাপন করবে কি ভাবে? সারা মাস কাজ করে যথা সময়ে বেতন- বোনাস না পাওয়া এটা শুধু কর্মকর্তাদের লজ্জা নয়, গোটা রেলপথ মন্ত্রণালয়ের লজ্জা। সেই সাথে সরকারকে বিব্রত করা। মাননীয় রেলপথ মন্ত্রী সিআরবিতে হাসপাতাল হবেই বলে যত সুন্দর করে শক্ত অবস্থানে আছেন, ঠিক সেই ভাবে সকল রেলওয়ে কর্মচারী যেন যথা সময়ে বেতন – বোনাস পায় সে দিকে সুদৃষ্টি দিলে হয়তো আজ সকল রেলওয়ে কর্মচারী বেতন- বোনাস পেত। রেলওয়ে কতৃপক্ষ – ব্যাংক যাদের অবহেলার কারণেই আজ এ অবস্থার সৃষ্টি হোক না কেন ভবিষ্যতে এরকম ঘটনা এড়াতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও রেলপথ মন্ত্রী মহোদয়ের নিকট আবেদন করছি যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের।

আপনার মতামত লিখুন :