রেলওয়ের টরে টক্কা টেলিগ্রাফি নিয়ে কিছু কথা। মোঃ সাজ্জাদ হোসেন বিভাগীয় সংস্থাপন কর্মকর্তা রেলওয়ে লালমনিরহাট অবসরপ্রাপ্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:০০ PM, ২৪ জুলাই ২০২১

১৯৮৩ সালে বাংলাদেশ রেলওয়েতে সহকারী স্টেশন মাস্টার হিসাবে যোগদান করার পরে আমাদের আট মাস বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ করতে হয় মোট ৫০০মার্কের পরীক্ষায় পাশ করতে হবে ,এ রকমই শর্ত ছিল ,পর পর দুবার পরীক্ষায় পাশ না করতে পারলে চাকুরী হতে বিদায় নিতে হবে এ রকম শর্ত ছিল!! ট্রেন পরিচালনায় সাথে সম্পৃক্ত পরিবহনের নিয় বা ট্রেন চালানোর নিয়মাবলী তথা জেনারেল ও সাবসিডিয়ারি রুলস ,অর্থাৎ রেলওয়ে এ্যাক্ট 1980 হুবাহু বুঝে মুখাস্হ করতে হতো ,নিজের ভষায় লেখার কন উপায় ছিলনা ,পরিবহন ,বানিজ্যিক তথা গুডস কোচিং ট্যারিফ, ,র সকল বিধিমালা সরাসরি পড়তে হতো ,কিন্ত ঝামেলা ছিল টেলিগ্রাফি , শব্দ হতো টরে টক্কা ,শুনতে একই রকম মনে হতে ,A টরে টক্কা,B টরে টরে টরে C টক্কা,এমনি ,মনে আছে কোন বার্তা পাঠাতে হতো ,আবর বার্তা রিসিভ করতে হতো,কোন ভূল হলে হবেনা?? একা অমনোযোগী হলে সব শেষ??? কোন অক্ষরের পর কোন অক্ষর হবে তা আর মিলানো যেত না?? ফাইনাল পরীক্ষায় আঠারো জনের মধ্য আমি সহ মাত্র আটজন পাশ করেছিলাম!!!! ট্রেনের লাইন ক্লিয়ার দেয়া নেয়া প্রথম দিকে মোর্সের টেলিগ্রাফির মাধ্যমে নিতে হতো,কোন বার্তা দেয়া নেয়াও করতে হতো!!! রেল প্রতিষ্ঠার প্রথম দিকে সব লাইনে টেলিফোন ব্যবস্হা ছিলনা!!!! আমি রূপসা বাগের হাট লাইনে টেলিগ্রাফির মাধ্যমে কাজ করেছি!!!!! এখনতো এ সব বিলুপ্তির পথে!!!!!!!!!! ছবি Ameenur Rahmanএর টাইম লাইন হতে নেয়া!!!

আপনার মতামত লিখুন :