রেলওয়ের প্রকল্পের অস্থায়ী গেইট কিপারদের চাকুরি স্থায়ীকরণের দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ রেলমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি পেশ

নিজেস্ব প্রতিবেদক
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:১২ PM, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

রেলওয়ের পূর্বাঞ্চল ও পশ্চিমাঞ্চলের অস্থায়ী গেইট কিপারদের চাকুরি স্থায়ীকরণের দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে সামনে বাংলাদেশ রেলওয়ে মান-উন্নয়ন শীর্ষক প্রকল্পের অস্থায়ী গেইটকিপার সমন্বয় পরিষদ পূর্ব-পশ্চিম অঞ্চল এর উদ্যোগে প্রায় ৬ শতাধিক গেইট কিপারের অংশগ্রহণে এ মানববন্ধন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে গেইট কিপাররা বলেন, বাংলাদেশ রেলওয়ে পূর্বাঞ্চল-পশ্চিমাঞ্চলের লেবেল ক্রসিং গেইটসমূহের পুনর্বাসন ও মান উন্নয়ন শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ২০১৮ সালে ১৮৮৯ জন অস্থায়ী গেইট কিপার পদে নিয়োগপ্রাপ্ত হয়। রেলওয়ে কর্তৃক মেয়াদ বৃদ্ধি করায় দীর্ঘদিন যাবৎ আমরা সততা ও দক্ষতার সহিত সুষ্ঠু ও নিরাপদে ট্রেন চলাচলে অগ্রনী ভূমিকা পালন করে যাচ্ছি। অথচ আমাদের চাকুরি স্থায়ীকরণ করা হচ্ছে না। এসময় সংগঠনের পক্ষ থেকে দাবি পেশ করা হয়। ১. দ্রুত চাকুরী স্থায়ীকরণের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হোক; ২. প্রকল্পের গেইট কিপারদের গত ৩ মাসের বেতন ও ঈদ বোনাস দেওয়া হয়নি, জরুরী ভিত্তিতে বেতন ও বোনাস পরিশোধ করতে হবে; ৩. দীর্ঘ সাড়ে ৩ বছর অতিবাহিত হওয়ার পরেও আমরা পূর্বের বেতনে চাকুরী করে যাচ্ছি। বর্তমান দ্রব্যমূল্যের সাথে সমন্বয় করে আমাদের বেতন বৃদ্ধি করতে হবে; ৪. মানবিক দিক বিবেচনা করে আমাদের রাজস্ব করণের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।
মানববন্ধনে বাংলাদেশ রেলওয়ে পোষ্য সোসাইটির সভাপতি মনিরুজ্জামান মনির বলেন, প্রকল্পের অস্থায়ী গেইট কিপারদের অনিশ্চিত ভবিষ্যত থেকে রক্ষার্থে তাদের চাকুরি স্থায়ীকরণ ও স্বল্প বেতনভোগী এসব গেইট কিপারদের বকেয়া বেতন অবিলম্বে পরিশোধের দাবি জানাচ্ছি। তাদের অনেকের চাকুরিতে প্রবেশের বয়স শেষ। তাই মানবিক দিক বিবেচনা করে তাদের চাকুরি স্থায়ীকরণ করা উচিৎ।
বাংলাদেশ রেলওয়ে মান-উন্নয়ন শীর্ষক প্রকল্পের অস্থায়ী গেইটকিপার সমন্বয় পরিষদ পূর্ব-পশ্চিম অঞ্চল এর সভাপতি মাহমুদুল হাসানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মো. আল মামুন শেখের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন সুজন আহমেদ, কাউছার চৌধুরী, ফখরুল ইসলাম, রূপা পারভীন, রায়হান, সোহাগ, আজিম উদ্দিন, আল মামুন শেখ প্রমুখ। মানববন্ধন শেষে সংগঠনের একটি প্রতিনিধি দল রেলপথ মন্ত্রী বরাবর তাদের দাবি সম্বলিত একটি স্মারকলিপি পেশ করেন।

আপনার মতামত লিখুন :