ঢাকা ২৮ মে, ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম
আফগানিস্তানে বন্যায় ১৬ জনের মৃত্যু, শত শত বাড়িঘর ধ্বংস গাজায় বাস্তুচ্যুতদের শিবিরে ইসরায়েলের ভয়াবহ হামলা, নিহত অন্তত ৩৫ বৈরী আবহাওয়ায় বন্ধ মেট্রোরেল রেমালের আঘাতের দিনে কেমন থাকবে আবহাওয়া? মাঝরাতে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জার্সি উন্মোচন রাজধানীতে ঝরছে রেমালের বৃষ্টি, সঙ্গে দমকা বাতাস রাজধানীতে ঝরছে রেমালের বৃষ্টি, সঙ্গে দমকা বাতাস রাজধানীতে ঝরছে রেমালের বৃষ্টি, সঙ্গে দমকা বাতাস বুক চিতিয়ে রেমালের তাণ্ডব ঠেকিয়ে দিলো সুন্দরবন ৬০ জন যাত্রী নিয়ে মোংলায় নৌকাডুবি

আগের বাড়তি দামেই চলছে সবজির বাজার

#

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩,  12:00 PM

news image

বাজারে আগের মতোই বাড়তি দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি। বিশেষ করে বরবটি, করলা, পটল ও ঢেঁড়শের দাম সবচেয়ে বেশি। বিক্রেতারা বলছেন, শীত মৌসুমের সবজি না হওয়ায় এগুলোর দাম তুলনামূলক বেশি। এদিকে সবজির দাম বেশি হওয়ায় অস্বস্তি জানিয়েছেন ভোক্তারা।

শুক্রবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) রাজধানীর বিভিন্ন সবজির বাজার ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

বাজারগুলোতে প্রতি পিস ফুলকপি বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকায়, একইভাবে বাধাকপিও প্রতি পিস ৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া প্রতি পিস লাউ ৬০ থেকে ৭০ টাকায়, টমেটো প্রতি কেজি ৪০ টাকায়, বেগুন প্রতি কেজি ৬০ টাকায়, পেঁপে প্রতি কেজি ৩০ টাকায়, শসা প্রতি কেজি ৪০ টাকায়, নতুন আলু প্রতি কেজি ৩০ টাকায়, সিম মানভেদে প্রতি কেজি  ৪০ থেকে ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া মিষ্টি কুমড়া প্রতি কেজি ৪০ টাকা, কাঁচ কলা প্রতি হালি ৪০ টাকা, গাঁজর প্রতি কেজি ৪০ টাকা, মূলা প্রতি কেজি ৪০ টাকা, খিঁড়া প্রতি কেজি ৪০ টাকা ও কাঁচা মরিচ মানভেদে ১৪০ থেকে ১৬০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। 

অন্যদিকে শীত মৌসুমের সবজি নয়, বাজারে এমন কিছু সবজির সরবরাহ একেবারেই কম দেখে গেছে। সে কারণে বাড়তি দামে এসব সবজি বিক্রি হচ্ছে। এগুলোর মধ্যে বরবটি প্রতি কেজি ১২০, করলা প্রতি কেজি ১৪০ থেকে ১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। পাশাপাশি পটল প্রতি কেজি ১৪০ থেকে ১৬০ টাকা ও ঢেঁড়স প্রতি কেজি ১২০ টাকায় বিক্রি হতে দেখা গেছে।

সাপ্তাহিক ছুটির দিনে রাজধানীর মহাখালী কাঁচা বাজারে বাজার করতে এসেছেন বেসরকারি চাকরিজীবী খালিলুর রহমান। তিনি বলেন, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে একই রকমভাবে বাজারে বাড়তি দামে সবজি বিক্রি হচ্ছে। কোনো কিছুরই দাম কমে না। ভরা শীত মৌসুমে সবজির দাম কিছুটা কম ছিল। কিন্তু শীত কমতে শুরু করতেই সবজিগুলোর দাম কিছুটা বেড়েছে। মাঝে মাঝে কোনো কোনো সবজির দাম কিছুটা বাড়ে আবার আগের দামে ফিরে আসে। সবমিলিয়ে বলতে গেলে বাজারে সবজির দাম বাড়তিই যাচ্ছে।

রাজধানীর মিরপুর শেওড়াপাড়া কাঁচা বাজারের সবজি বিক্রেতা জাহাঙ্গীর আলম বলেন, কয়েক সপ্তাহ ধরে সবজির বাজার একই রকম যাচ্ছে। বাজার ভেদে কোনো কোনো সবজির দাম ৫/১০ টাকা কম-বেশি হয়। পাইকারি বাজার থেকে মাল কেনার পর পরিবহন খরচ হয়। সে কারণে লাভ রেখে ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করি। বাজার ভেদে সবজির দামে খুব বেশি পার্থক্য থাকে না। 

কিছু সবজি অতিরিক্তি বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে-এর কারণ হিসবে গুলশান সংলগ্ন লেকপাড় কাঁচা বাজারের সবজি বিক্রেতা আনোয়ার হোসেন বলেন, বিগত কিছুদিন ধরে সবজির বাজার প্রায়রকম যাচ্ছে। তবে এখন মৌসুম না হওয়ায় কিছু কিছু সবজির বাড়তি দাম যাচ্ছে। এর কারণ হলো বাজারে সরবরাহ খুবই কম তাই দাম একুট বাড়তি।

তিনি বলেন, বরবটি, করলা, ঢেঁড়স, পটলের দাম সব ১০০ টাকার উপরে। কারণ এগুলো শীত মৌসুমের সবজি নয়। কিছু কিছু ক্রেতা এসব সবজি নিয়মিত কেনে তাই দোকানিরা অল্প পরিমাণে এসব দামি সবজি দোকানে রাখে। আসলে সব শ্রেণির ক্রেতারা এসব দামি সবজি কেনে না, এজন্য নির্দিষ্ট কিছু ক্রেতা আছে। তবে আবার যখন মৌসুম শুরু হবে তখন এসব সবজিই ৪০/৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হবে।

logo
সম্পাদক ও প্রকাশক মো: মনিরুজ্জামান মনির